সোনালী ইসেবা অ্যাপে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণের কিস্তি পরিশোধ

সোনালী ইসেবা অ্যাপে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণের কিস্তি পরিশোধের সহজ উপায়। । প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তি বিকাশ, নগদ, সেলফিন এর মাধ্যমে পরিশোধ করার নিয়ম।

Play Video about প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তি অনলাইনে পরিশোধ করার নিয়ম

সোনালী ইসেবা অ্যাপে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণের কিস্তি পরিশোধের সহজ নিয়ম। প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক নিয়ে এসেছে সোনালী ইসেবা অ্যাপে অনলাইনে ঋণের কিস্তি পরিশোধের সুবিধা। সম্প্রতি প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক এবং সোনালী ব্যাংকের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। আর এর ফলে প্রবাসীরা এখন  ঘরে বসেই অনলাইনে সোনালী ব্যাংকের সোনালী ই-সেবা অ্যাপ (Sonali eSheba App) এবং সোনালী পেমেন্ট গেটওয়ে (Sonali Payment Gateway) ব্যবহার করে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ঋণের টাকা পরিশোধ করতে পারছে।

প্রবাসীরা অনেকেই প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে বিদেশে যান। কিন্তু বিদেশে যাওয়ান পর ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে গিয়ে নানান রকম সমস্যায় পড়েন। প্রবাসীরা থাকেন দেশের বাইরে, কিন্তু ঋণের কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে হয় বাংলাদেশে, তাও আবার ব্যাংকে গিয়ে।

প্রবাসীদের সমস্যার সমাধান দিতে, প্রবাসি কল্যাণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তির টাকা অনলাইনে পরিশোধ এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট, ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ড, মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস মানে বিকাশ, নগদ, উপায়, সেলফিন ইত্যাদি ব্যবহার করে এখন ঘরে বসেই অনলাইনে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তির টাকা পরিশোধ করা যাচ্ছে। এই পোস্টে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তি অনলাইনে পরিশোধ করার নিয়ম আলোচনা করা হয়েছে।

সোনালী ব্যাংকের সোনালী ইসেবা (Sonali eSheba) অ্যাপ ইন্সটল করা।

প্রথমেই আপনার মোবাইল ফোনে Sonali eSheba অ্যাপ ইন্সটল করতে হবে। অ্যাপটি ইন্সটল করার জন্য ফোনের প্লেস্টোর বা অ্যাপস্টোর ওপেন করতে হবে। তারপর সার্চ বক্সে Sonali eSheba লিখে সার্চ করতে হবে। ইন্সটল বাটনে ট্যাপ করলে অ্যাপটি ডাউনলোড এবং তারপর ইন্সটল হওয়া শুরু করবে। নিচের ছবিতে অ্যাপটি ইন্সটল করা নিয়ম দেখানো হয়েছে।

সোনালী ইসেবা অ্যাপে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণের কিস্তি পরিশোধের ফরম পূরণ।

অ্যাপটি ইন্সটল হওয়ার পর ওপেন করলে নিচের ছবির মতো একটি ইন্টারফেস দেখা যাবে। অ্যাপটিতে  স্ক্রল করে একটু নিচের দিকে আসলে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক এর লোগো এবং নাম দেখা যাবে।

প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের লোগোর উপর ট্যাপ করলেই নিচের ছবির মতো একটি পেমেন্ট ফরম ওপেন হবে।

এখানে Loan Branch এর মধ্য থেকে, আপনি যে শাখা হতে ঋণ নিয়েছিলেন তার নাম সিলেক্ট করতে হবে। পাঠকদের দেখানোর জন্য এখানে কোম্পানিগঞ্জ শাখা সিলেক্ট করা হয়েছে। 

তারপর Loan A/C No এর ঘরে আপনার ১৩ ডিজিটের ঋণ হিসাব নাম্বারটি লিখতে হবে। ব্যাংক আপনাকে ঋণ দেয়ার সময় এই নম্বরটি দিয়েছিল। এই ঋণ নাম্বারটি দেখতে অনেকটা মোবাইল নাম্বারে মতো মনে হলেও, এটি আসলে আপনার ১৩ ডিজিটের ঋণ হিসাব নাম্বার। 

আপনি যদি নাম্বারটি না জানেন, তাহলে ব্যাংকে ফোন করলে তারা নাম্বারটি পেতে আপনাকে সাহায্য করবে। ব্যাংকের সব গুলো শাখার ঠিকানা জানতে আমাদের এই ভিডিওটি (লিংক) দেখতে পারেন অথবা প্রবাসী সেবার ওয়েবসাইট ভিজিট (লিংক) করতে পারেন।

Loan A/C No এর ঘরে সঠিকভাবে ঋণ হিসাব নাম্বারটি লিখতে হবে। ঋণ হিসাব নাম্বারটি সঠিকভাবে লিখা হলে, নিচের ঘরে ঋণ গ্রহীতার নাম অটোমেটিকভাবেই চলে আসবে। যদি নাম্বারটি ভুল হয় তাহলে ভুল নাম আসবে অথবা নিচের ছবির মতো একটি মেসেজ দেখতে পাবেন। 

সোনালী ইসেবা প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণের কিস্তি পরিশোধ

ঋণের নাম্বার সঠিকভাবে দেয়ার পর Purpose এর ঘর হতে Loan Installment সিলেক্ট করবেন।

Contact Number এর ঘরে আমাদের মোবাইল নাম্বারটি লিখতে হবে। এখানে আপনার ১১ ডিজিটের মোবাইল নাম্বারটি লিখবেন।

Installment এর ঘরে আপনার ঋণের কিস্তির পরিমাণ দেখতে পাবেন। আপনি চাইলে এর সমান বা কম যেকোন পরিমাণ টাকাই কিস্তি হিসেবে পরিশোধ করতে পারবেন।

Pay Amount এর ঘরে আপনি কত টাকা ঋণের কিস্তি হিসেবে পরিশোধ করতে চান সেটা লিখবেন। পাঠকদের দেখানোর জন্য এখানে ৫০ টাকা লিখা হয়েছে।  

টাকার এমাউন্ট লিখার পর নিচের ঘরে Captcha এর ঘরের লিখাটি লিখতে হবে।

যেকোনো স্থান থেকে যেকোনো সমইয় প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তি পরিশোধ

সবকিছু ঠিকঠাক ভাবে লেখার পর, Check বাটনে ট্যাপ করলে Payment Review নামে এমন একটি পেইজ ওপেন হবে। এই পেইজে আপনার ঋণের কিস্তি পরিশোধের সকল তথ্য, অর্থাৎ ঋণ গ্রহীতার নাম, ঋণ হিসাব নম্বর, কিস্তির পরিশোধের পরিমাণ, এমন তথ্যগুলো দেখবে পাবেন।

যদি কোনো তথ্যে ভুল থাকে, তাহলে Edit বাটনে ট্যাপ করে তথ্যগুলো আবার এডিট করা যাবে। আর যদি তথ্যগুলো ঠিকঠাক থাকে তাহলে Make Payment বাটনে ট্যাপ করলে, Sonali Payment Gateway এর পেইজ ওপেন হবে।

ইসেবা অ্যাপে কিস্তির অর্থ বিকাশের এর মাধ্যমে পরিশোধ করা।

Sonali Payment Gateway এর পেইজ ব্যবহার করে আপনাকে ঋণের কিস্তি অনলাইনে পরিশোধ করতে হবে। পেমেন্ট গেটওয়ের পেইজ ওপেন হলে এই পেইজ হতে কিভাবে কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে চান সেটা সিলেক্ট করতে হবে। সোনালী ই-সেবা অ্যাপে তিনটি পেমেন্ট মেথড রয়েছে। সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট, ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ড এবং মোবাইল ব্যাংকিং এই তিন উপায়ে কিস্তির টাকা পরিশোধ করা যায়।

আপনি কোন উপায়ে পেমেন্ট করতে চান সেটা সিলেক্ট করে স্ক্রীনের নির্দেশগুলো ফলো করে পেমেন্ট সম্পন্ন করতে পারবেন। এই পোস্টের বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট এর বিষয়টি দেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে। অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস যেমন নগদ, রকেট, সেলফিন, উপায় সবগুলোর নিয়ম অনেকটা বিকাশের মতোই। 

বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করার জন্য বিকাশের লোগোর উপর ট্যাপ করার পর একটি পপ-আপ আসবে। Confirm এ ট্যাপ করলে নিচের ছবির মতো পেইজটি ওপেন হবে। পেইজটিতে Pay with Bkash বাটনে ট্যাপ করলে বিকাশের মার্চেন্ট ওয়েবসাইট ওপেন হবে।

এই ঘরে আমাদেরকে বিকাশ নাম্বারটি লিখতে হবে। আপনি যেকারো বিকাশ নাম্বারই ব্যবহার করতে পারবেন। এতে কোনো সমস্যা হবে না। 

সঠিকভাবে নাম্বার দেয়ার পর Confirm বাটনে ট্যাপ করলে, ছবির মতো পেইজ ওপেন হবে এবং আপনার বিকাশের নাম্বার ভেরিফিকেশন কোড সহ SMS যাবে। SMS এর কোডটি Verification Code এর ঘরে লিখতে হবে।

তারপর Confirm বাটনে ট্যাপ করলে বিকাশে পিন দেয়ার জন্য বলা হবে। এখানে বিকাশ একাউন্ট এর পিন নাম্বার লিখতে হবে এবং Confirm বাটনে ট্যাপ করতে হবে। তাহলেই কিস্তির টাকা পরিশোধ হয়ে যাবে এবং বিকাশ একাউন্ট হতে ঐ পরিমাণ টাকা কেটে নেওয়া হবে। 

একই নিয়ম অনুসরন করে আপনি চাইলে নগদ, রকেট, উপায় বা সেলফিন ব্যবহার করেও কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে পারবেন।

কিস্তির টাকা পরিশোধের প্রমাণ হিসেবে আপনি ভাউচারটি স্কিনশট নিয়ে রাখতে পারেন।  আপনি চাইলে Download বাটনে ট্যাপ করে ভাউচারটি PDF হিসেবে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

কিস্তির টাকা পরিশোধের পর আপনার মোবাইলে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক হতে একটি SMS পাঠানো হবে। মেসেজে আপনার পরিশোধ করা কিস্তির পরিমাণ এবং কত টাকা বাকি আছে সে সম্পর্কিত তথ্য দেওয়া থাকবে।

পুনশ্চ, অনলাইনে কিস্তির টাকা পরিশোধের জন্য প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংককে, বাড়তি কোনো চার্জ দিতে হবে না। কিন্তু আপনি যদি বিকাশ, নগদ বা অন্য কোনো মাধ্যম ব্যবহার করেন, তাহলে তাদেরকে হাজার প্রতি একটা নির্দিষ্ট টাকা চার্জ দিতে হবে। মানে, বিকাশের টাকা তুলতে আমরা যেমন প্রতি হাজারে ২০ টাকা খরচ করি, বিষয়টা অনেকটা তেমনই।

 

আসা করছি এই পোস্টটির মাধ্যমে, আপনি অনলাইনে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে পারছেন। কোনো কিছু বুঝতে সমস্যা হলে পোস্টটির কমেন্ট সেকশনে আপনার সমস্যা আমাদের জানাতে পারেন।  আপনি যদি সম্পূর্ণ বিষয়টি ভিডিও টিউটোরিয়াল আকারে দেখত চান তাহলে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল ভিজিট করতে পারেন।

নগদ, রকেট, সেলফি, বিকাশের মাধ্যমে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তি পরিশোধ

সোনালী ইসেবা প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণের কিস্তি পরিশোধ

প্রবাসী সেবা অভিবাসী কর্মীদের উদ্দেশ্যে নির্ভুল তথ্য উপস্থাপনে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সকল তথ্য নির্ভরযোগ্য উৎস থেকে সংগৃহীত। যে কোন ধরণের ভুল উপস্থাপনা এড়াতে আমরা আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত আপডেট করছি। তারপরেও, আপনি যদি ওয়েবসাইটে কোন ধরনের ভুল তথ্য খুজে পান, তাহলে আপনি আমাদেরকে ই-মেইল অথবা ফেসবুক মেসেজের মাধ্যমে জানাতে পারেন। আমরা আপনার প্রতি কৃতজ্ঞ থাকব।

প্রবাসী সেবার সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

সোনালী ইসেবা প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণের কিস্তি পরিশোধ

সোনালী ইসেবা প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক ঋণের কিস্তি পরিশোধ

বিজ্ঞাপন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বাধিক পঠিত