করোনার মধ্যেও প্রবাসী রেমিট্যান্স এসেছে ২ লক্ষ কোটি টাকা

0
প্রবাসী আয় রেমিট্যান্স

করোনার মধ্যে যখন সারা পৃথিবী নাজেহাল, তখনো দেশের পাশে দাড়িয়েছেন দেশের প্রবাসী রেমিটেন্স যোদ্ধারা। প্রবাসীদের পাঠানো আয় বাংলাদেশের অর্থনীতিক ভারসাম্য বজায় রাখতে বিরাট ভূমিকা পালন করছে।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ২০২০২১ অর্থবছরে বাংলাদেশে প্রবাসী আয় বা রেমিটেন্স এসেছে ২৪৭৭ কোটি ৭৭ লক্ষ ডলার বা লাখ ১০ হাজার ১১৪ কোটি টাকা। এই বিপুল পরিমাণ রেমিটেন্স পাঠানোর ফলে বাংলাদেশে প্রবাসী আয়ের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৩৬ শতাংশ।

এই প্রবাসী আয়ের ফলে বিশাল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ তৈরি করেছে বাংলাদশ ব্যাংক। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ পৌঁছেছে ৪৬ বিলিয়ন ডলারের ওপরে। মে মাসের শুরুতে এই রিজার্ভ ছাড়িয়েছিল ৪৫ বিলিয়ন বা হাজার ৫০০ কোটি ডলার।

 

বৈধ পথে প্রবাসী আয় আসাকে উৎসাহিত করতে কোনো কোনো ব্যাংক নিজেরা সরকারের শতাংশ প্রণোদনার সঙ্গে বাড়তি শতাংশ প্রণোদনা দিচ্ছে।

 

করোনার মধ্যে প্রবাসীদের পাঠানো আয় বাংলাদেশের অর্থনীতিক ভারসাম্য বজায় রাখতে বিরাট ভূমিকা পালন করছে। তাছাড়া ব্যাংক বাণিজ্যিক ব্যাংক সমূহও পর্যাপ্ত  পরিমাণ আমানত তৈরি করতে পারছে। করোনা কালীন সময়ে দ্রব্য মূল্যের উর্ধগতির মধ্যে প্রবাসী আয় তাদের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে স্বস্তি সাহজ যোগাচ্ছে।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, প্রবাসীরা চলতি জুন মাসে দেশে মোট ১৯৪ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন। আর চলতি ২০২০২১অর্থবছরে প্রবাসী আয় এসেছে হাজার ৪৭৭ কোটি ৭৭ লাখ ডলার। এর আগের ২০১৯২০ অর্থবছরের একই সময়ে প্রবাসীরা পাঠিয়েছিলেন হাজার ৮০৩ কোটি ১০ লাখ ডলার।

 

কৃতজ্ঞতা : প্রথম আলো

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বাধিক পঠিত